• শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ০৪:৫৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
যুব জমিয়ত বাংলাদেশ সুনামগঞ্জ জেলা শাখার ৪১ বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন পাবনায় জামায়াতের সেলাই মেশিন বিতরণ নড়াইলে মোটরসাইকেল-ট্রাক মুখোমুখি সংঘর্ষে স্কুলছাত্র নিহত ঈদুল আযহা উপলক্ষে রায়পুরাতে ভিজিএফ’র চাল বিতরণ…. শিক্ষা কর্মকাণ্ডে প্রশংসিত,রাজশাহী অঞ্চলের উপপরিচালক মাউসির (ডিডি)ডাঃশরমিন ফেরদৌস চৌধুরী। র‍্যাবের অভিযানে রাজশাহীর চারঘাট হতে ৩২০ বোতল ফেন্সিডিল জব্দ’ ০১ জন মাদক কারবারি গ্রেফতার চট্টগ্রামে প্রগতি লাইফ ইন্স্যরেন্স কোম্পানির মৃত্যুদাবির চেক হস্তান্তর অনুষ্ঠান সম্পন্ন ———————- সীতাকুণ্ডে মহাসড়কে প্রাণ গেল মোটরসাইকেল আরোহীর যুবকের নড়াইলে ইজিবাইক কিনে দেওয়ার প্রলোভনে অপহরনের পর হত্যা, ৩ জনের ফাঁসির আদেশ বিশিষ্ট সমাজ সেবক আলহাজ্ব জুলহাস উদ্দিন আহমেদের সুস্থতা কামনায় দোয়া অনুষ্ঠিত

চোখ ও দৃষ্টিশক্তির সুরক্ষায় যোগের ভূমিকা অপরিসীম

Muntu Rahman / ১৫৩ Time View
Update : বৃহস্পতিবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২৩

চোখ ও দৃষ্টিশক্তির সুরক্ষায় যোগের ভূমিকা অপরিসীম

শংকর নেত্রালয় হাসপাতাল থেকে ডাঃ কামরুল ইসলাম মনা-
আজ এক সপ্তাহ কলকাতার মুকুন্দপুরের শংকর নেত্রালয় হাসপাতালে একজন রুগীর সাথে আছি। শত শত মানুষের চোখ নিয়ে কষ্ট দেখে আমি ও খুব কষ্ট পাচ্ছি। চোখের যে এত সমস্যা হতে পারে অভিজ্ঞতা ছিল না। চোখ আমাদের অতি মূল্যবান সম্পদ। যার চোখ নেই সেই জানে চোখ কি? অবহেলা না করে আজ থেকেই আসুন চোখের যত্ন নিতে শুরু করি এবং মোবাইল নামক জিনিস টা কে যতটা পারি এড়িয়ে চলারও চেষ্টা করি।
আজ আলোচনায় থাকছে চোখ ও দৃষ্টিশক্তির সুরক্ষায় যোগের ভূমিকা অপরিসীম।
আমাদের পঞ্চ ইন্দ্রিয়র অন্যতম ইন্দ্রিয় হল চোখ। অথচ, বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই এই চোখের উপযুক্ত যত্ন নিতে আমরা ভুলে যাই। চোখের নানা খুঁটিনাটি সমস্যাকে আমরা বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই তেমন গুরুত্ব দিই না। বর্তমান যুগে বাড়তে থাকা দূষণ, কাজের পরিবর্তিত ধরন, পরিবেশগত পরিবর্তন— এ রকম নানা কারণে চোখের নানা রকম সমস্যা দেখা দেয়।

আজকের ডিজিটাল যুগে যেখানে বিভিন্ন গ্যাজেটের স্ক্রিনগুলি আমাদের জীবনের একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে উঠেছে। যার ফলে আমাদের চোখের স্বাস্থ্য ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। শিশু থেকে প্রাপ্তবয়স্ক উভয়ই ইলেকট্রনিক ডিভাইসের সাথে জড়িত এবং দিনের একটি উল্লেখযোগ্য সময় ব্যয় করে এর মাধ্যমে, যার ফলে অল্প বয়সেই দৃষ্টি সমস্যা বেড়ে যায়। অন্যদিকে ডায়াবেটিস এবং থাইরয়েডের জনিত রজার জন্য বিভিন্ন দৃষ্টি সম্পর্কিত সমস্যার কারণ হতে পারে যেমন ডায়াবেটিক রেটিনোপ্যাথি, ছানি এবং গ্লুকোমা এমনকি চোখের মধ্যে পেসারেও দেখা যাচ্ছে।
HT লাইফস্টাইলের একটি সাক্ষাৎকারে, জগৎ ফার্মার সিইও এবং ডাঃ বসু চক্ষু হাসপাতালের পরিচালক ডাঃ মনদীপ সিং বসু পরামর্শ দিয়েছেন, আমাদের দৈনন্দিন রুটিনে সহজ যোগ কিছু ব্যায়াম অন্তর্ভুক্ত করলে তা দৃষ্টিশক্তি উন্নত করতে সাহায্য করতে পারে এবং এটি বেশিরভাগ রোগ প্রতিরোধে কার্যকর বলে বিবেচিত হয়। মায়োপিয়া এবং হাইপারমেট্রোপিয়া সহ চোখের-সম্পর্কিত সমস্যা দূর হয়। তাঁর মতে, আমাদের চোখকে সুস্থ ও তীক্ষ্ণ রাখতে চোখের যোগব্যায়াম খুব উপকারী।

প্রাচীন ভারতীয় যোগব্যায়াম বিশেষজ্ঞদের দ্বারা বিশেষভাবে প্রবর্তিত কিছু কার্যকর যোগাসন নিচে দেওয়া হল:

চোখে পামিং করা-
এই যোগিক কার্যকলাপটি আপনার চোখ বন্ধ করে চুপচাপ বসে তারপর শরীরকে শিথিল করার জন্য গভীর শ্বাস নেওয়ার মাধ্যমে শুরু হয়।
আপনার হাতের তালুগুলি উষ্ণ না হওয়া পর্যন্ত জোরে ঘষুন এবং তারপরে আপনার বন্ধ চোখের পাতার উপরে আলতোভাবে রাখুন।
আপনার হাত থেকে উষ্ণতা চোখের দ্বারা শোষিত হতে দিন। উষ্ণতার সম্পূর্ণ শোষণ যেন নিশ্চিত করে।

উপকার: এই তাপ চোখের পেশীগুলিকে শিথিলতা প্রদান করে।

চোখে পলক ফেলা-
চোখের পলক ফেলার ব্যায়াম যেমন সহজ তেমনি কার্যকর।
এটি অনুশীলন করতে, আপনাকে চোখ খোলা রেখে আরামে বসতে হবে।
প্রায় 10 বার দ্রুত পলক ফেলুন এবং তারপর আপনার চোখ বন্ধ করুন।
আপনার নিজের শ্বাসের উপর ফোকাস করার সময় 20 সেকেন্ডের জন্য চোখ শিথিল করুন।
এই চক্রটি প্রায় 5 বার পুনরাবৃত্তি করুন।

উপকার: চোখের পলক ফেলার ব্যায়াম চোখের তৈলাক্তকরণে সাহায্য করে এবং দীর্ঘ স্ক্রীন টাইমের কারণে সৃষ্ট চাপ কমায়।

চোখের ঘূর্ণন-
পলক ফেলার মতো, চোখ ঘোরানো আমাদের চোখ ভালো রাখার জন্য আরেকটি স্বাস্থ্যকর যোগব্যায়ামের। এছাড়াও, এটি অনুশীলন করা সহজ।
মেরুদণ্ড সোজা করে শান্ত ভাবে বসুন। আপনার হাত আপনার কোলে রেখে স্থির হয়ে থাকুন।
এবার আপনার মাথা না সরিয়ে আপনার চোখ ঘড়ির কাঁটার দিকে এবং তারপর ঘড়ির কাঁটার বিপরীত দিকে 5-10 মিনিট প্রতিটি দিকে ঘোরান।

উপকার: চোখের ঘূর্ণন চোখের পেশীর নমনীয়তা এবং রক্ত সঞ্চালন বাড়ায়, দৃষ্টিশক্তি উন্নত করতে অবদান রাখে।

আপ-ডাউন মুভমেন্ট-
এই যোগ থেরাপি চোখের পেশীগুলির জন্য বেশ আরামদায়ক।
এটি সম্পাদন করার জন্য, আপনাকে একটি সমতল জায়গায় একটি মাদুরে সোজা হয়ে দাঁড়াতে হবে।
এরপর সিলিংয়ের দিকে তাকান, তারপরে আবার আপনার দৃষ্টি মেঝেতে নিয়ে আসুন এবং আবার উপরে তাকান।
পলক না ফেলে এই পক্রিয়া 10 বার পুনরাবৃত্তি করুন।
তারপরে, আপনার চোখ বন্ধ করুন এবং আপনার হাতের তালু দিয়ে আলতো করে টিপুন।

উপকার: এই ব্যায়াম চোখের পেশী শিথিল কর

ভ্রামরি প্রাণায়াম-
ভ্রমরি প্রাণায়াম চোখের জন্য সবচেয়ে জনপ্রিয় যোগ থেরাপির এবং আরামদায়ক।
আপনার চোখ বন্ধ করুন এবং আপনার কানের সাথে আপনার তালু দিয়ে হালকাভাবে চাপুন, সেগুলিকে ঢেকে দিন।
আপনার তর্জনীগুলি আপনার ভ্রু এবং আপনার নাকের গোড়ায় ছোট আঙ্গুলগুলির মধ্যে রাখুন।
আপনার ভ্রুর কেন্দ্রে আপনার মনোযোগ কেন্দ্রীভূত করুন।
আপনার নাক দিয়ে গভীরভাবে শ্বাস নিন, 2-3 সেকেন্ডের জন্য আপনার শ্বাস ধরে রাখুন এবং তারপর নাক দিয়ে ধীরে ধীরে শ্বাস ছাড়ুন, একটি গুনগুন শব্দ তৈরি করুন।
এই প্রক্রিয়াটি পাঁচবার পুনরাবৃত্তি করুন।

উপকার: ভ্রামরি প্রাণায়াম মনকে শান্ত করে এবং সামগ্রিক চোখের স্বাস্থ্য বাড়ায়। শ্রবণশক্তি বৃদ্ধিতে উপকারী।
উপরের এই ব্যায়াম গুলো একটু সময় বার করে প্রতিদিন করে ফেলার চেষ্টা করুন, যদি সব কোটা ব্যায়াম করার সময় না পান atleast ৩টি ব্যায়াম নিয়ম করে শুরু করুন।
চোখের জন্য এই ভাল-প্রমাণিত ব্যায়ামগুলি ছাড়াও আরও অনেক উপযুক্ত থেরাপির যেমন ফ্লেক্সিং এবং ফোকাস স্যুইচিংও চোখের জন্য খুব কার্যকরী। প্রতিদিনের ফিটনেস প্ল্যানে এগুলিকে অন্তর্ভুক্ত করে, আমরা দৃষ্টি-সম্পর্কিত অনেক সমস্যা এড়াতে পারি এবং আমাদের চোখের সম্পূর্ণ সুস্থতা নিশ্চিত করতে পারি।
শুধু চোখের নয় পুরো শরীর কে সুস্থ রাখতে নিয়মিত যোগ করুন, নিজের ডাক্তার নিজেই হয়ে উঠুন।

যোগ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ও প্রশিক্ষণ নিতে – ০১৭১২২৭৬৭৫৩


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

Devoloped By WOOHOSTBD